পেট থেকে বের হল ৬৩৬ পেরেক!

অক্টোবর ৩১, ২০১৭, ১২:২৭ অপরাহ্ণ
অনলাইন ডেস্ক

প্রতিদিনই একটি করে লোহার পেরেক খেতেন প্রদীপ ঢালি! মাসের পর মাস পেরেক খেয়ে পেটে জমিয়েছেন পেরেকের স্তূপ।

অবশেষে পেটের যন্ত্রণা ও বমির তীব্রতা সহ্য করতে না পেরে তিনি ভর্তি হন কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে।
সোমবার সেখানে প্রদীপের পাকস্থলীতে অস্ত্রোপচার করা হয়। এতেই বেরিয়ে আসে তার পেট ব্যথার রহস্য। তার পাকস্থলীতে জমেছে একে একে ৬৩৬টি পেরেক!
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, প্রদীপ পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনার গোবরডাঙার বাসিন্দা। পেটের ব্যথা নিয়ে জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তিনি। কিন্তু সেখানে তার কোনো রোগ ধরা না পড়ায় তাকে কলকাতায় পাঠানো হয়।
গত শুক্রবার প্রদীপ কলকাতা মেডিকেল কলেজে ভর্তি হন। এর পর চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে দেখেন, তার পাকস্থলীতে শত শত পেরেক রয়েছে।
সোমবার সিদ্ধার্থ বিশ্বাসের নেতৃত্বে তিন চিকিৎসক দেড় ঘণ্টাব্যাপী প্রদীপের পেটে অস্ত্রোপচার করেন।
অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকরা জানান, প্রদীপের পেটের সব পেরেকই বের করা সম্ভব হয়েছে। প্রায় দেড় কেজি পেরেক জমলেও পাকস্থলীর বিশেষ ক্ষতি হয়নি। তার অবস্থা এখন স্থিতিশীল।
চিকিৎসকরা জানান, ৪৪ বছর ধরে প্রদীপ মানসিক সমস্যায় ভুগছেন বলে জানিয়েছেন। এ কারণে তিনি প্রতিদিন খাবারের সঙ্গে পেরেক খেয়েছেন। পেটের যন্ত্রণা ও বমি হলেও চিকিৎসককে পেরেক খাওয়ার ব্যাপারে তিনি কিছু জানাননি। ফলে তার সমস্যা দিন দিন বেড়ে যায়।
চিকিৎসক সিদ্ধার্থ বলেন, সাধারণত এত পরিমাণ লোহার পেরেক পাকস্থলীতে জমলে মারাত্মক ক্ষতি হওয়ার ঝুঁকি থাকে। পাশাপাশি পেরেক বের করার সময়েও পেটের অন্যান্য অঙ্গের ক্ষতি হতে পারত। কিন্তু অস্ত্রোপচার করার সময় সেই বিপদ এড়ানো সম্ভব হয়েছে। আনন্দবাজার পত্রিকা

পড়া হয়েছে ৫৪ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ