বাংলাদেশের সফল অধিনায়ক এখন মাশরাফি

জানুয়ারি ২৪, ২০১৮, ৫:০৯ অপরাহ্ণ
এক সময় তার নেতৃত্বে খেলেছিলেন এবার নিজে নেতৃত্ব দিয়ে তাকে ছাড়িয়ে গেলেন। বলছিলাম ওয়ানডেতে বাংলাদেশের সফল অধিনায়ক নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত মাশরাফি বিন মুর্তজার কথা।
অথচ এ স্থানে তাকে উঠে আসাটা তার জন্য সহজ হয়নি। সার্জনের চাকুর নিচে শুয়েছেন ৮বার। তারপরও তার অদম্য ইচ্ছায় আজ তিনি বিশ্ব ক্রিকেটের একটি উদাহরণ। বাংলাদেশের গৌরবের বিষয়। যার থেকে অনুপ্রেরণা পান অনেকেই।
১৯৮৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশ দলের অধিনায়কত্ব করেছেন ১৩ জন। তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ম্যাচে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন হাবিবুল বাশার সুমন। তার সময়েই বাংলাদেশ ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি জয় পেয়েছিল। তাই তাকে বাংলাদেশের সর্বকালের অন্যতম সেরা অধিনায়কও বলা হয়।
কিন্তু আজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয়ের মধ্য দিয়ে হাবিবুল বাশারের চেয়ে কম ম্যাচে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দিয়ে জয়ের দিক দিয়ে তাকে ছাড়িয়ে গেলেন ক্যাপ্টেন কুল। সেটা যেমন মোট জয়ের দিক দিয়ে, তেমনি জয়ের শতকরা হারের দিক দিয়েও।
তার অধিনায়কত্বে গত আড়াই বছর ধরে অন্য দল হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ। ধরা দিয়েছে একের পর এক মনে রাখার মতো সাফল্য। অধিনায়ক হিসাবে নিজেকে নিয়ে গেছেন অন্য উচ্চতায়। এবার অনন্য এক সাফল্যে উদ্ভাসিত হলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা।
দেশকে সবচেয়ে বেশি ম্যাচে জয় এনে দিয়ে নতুন মাইলফলক গড়লেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। বাংলাদেশকে সবচেয়ে বেশি জয় এনে দেয়া অধিনায়ক এখন তিনিই। ৫৩টি ওয়ানডে ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে দলকে ৩০টি জয় এনে দেন মাশরাফি। হার ২১টিতে। ফল হয়নি ২টি ম্যাচে। জয়ের হার ৫৮.৮২।
এতদিন এই রেকর্ডটা ছিল সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার সুমনের দখলে। বাশার ৬৯ ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিয়ে ২৯টি ম্যাচে দলকে জিতিয়েছিলেন। জয়ের শতকরা হার ৪২.০২।
বাশারের নেতৃত্বে ৪০টি ম্যাচ হেরেছে বাংলাদেশ। তবে মাশরাফির নেতৃত্বে ২১টি ম্যাচ হারে বাংলাদেশ। তার মানে এখানেও বাশারের চেয়ে অনেক এগিয়ে আছেন মাশরাফি। বাশার-মাশরাফির পর বাংলাদেশকে তৃতীয় সর্বোচ্চ ২৩টি ওয়ানডেতে জয়ের স্বাদ দিয়েছেন ৫০টি ম্যাচে নেতৃত্ব দেয়া সাকিব আল হাসান। আর হেরেছে ২৬ ম্যাচে। ফল হয়নি ১টি ম্যাচে। সাকিব অবশ্য জয়ের হারের দিক দিয়ে হাবিবুল বাশার সুমনকে পেছনে ফেলেছেন। সাকিবের জয়ের হার ছিল ৪৬.৯৩।
মোহাম্মদ আশরাফুল বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ৩৮ ম্যাচে। যেখানে বাংলাদেশ জিতেছে ৮টিতে। হেরেছে ৩০টিতে। মুশফিকুর রহিম নেতৃত্ব দিয়েছেন ৩৭ ম্যাচে। জয় ১১টিতে। হার ২৪টিতে। ফল হয়নি ২টি ম্যাচে। খালেদ মাসুদ পাইলট ৩০ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে জয় এনে দিয়েছিলেন ৪টিতে। হার ২৪টিতে। ফল হয়নি ২টি ম্যাচে।

পড়া হয়েছে ৭১ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ