দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে সৌদি সরকারের বাজিমাত

জানুয়ারি ৩১, ২০১৮, ৭:০১ পূর্বাহ্ণ
সৌদি আরবের অ্যাটর্নি জেনারেল বলেছেন, সাম্প্রতিক দুর্নীতিবিরোধী অভিযান থেকে সরকারের আয় হয়েছে ১০ হাজার ৬শ ৭০ (১০৬.৭ বিলিয়ন) কোটি ডলার। ওই অভিযানে আটককৃত ব্যক্তিদের কাছ এ অর্থ আদায় করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। খবর বিবিসির।
অ্যাটর্নি জেনারেল শেখ সৌদ আল-মুজেব বলেছেন, গেলো ৪ নভেম্বরের ওই অভিযানে ৩৮১ জনকে আটক করা হয়েছিল। এরমধ্যে ৫৬ জন ছাড়া বাকি সবাই ছাড়া পেয়েছেন।
তিনি আরও বলেন, ওই ব্যক্তিরা হয় নিরপরাধ প্রমাণিত হয়েছে অথবা সম্পত্তি বা অর্থের বিনিময়ে মুক্তি পেয়েছেন।
তবে আর্থিক রফদফার মাধ্যমে কারা ছাড়া পেয়েছেন তাদের নাম বলেননি শেখ মুজেব। ওই অভিযানে প্রিন্সসহ বর্তমান ও সাবেক বেশ কয়েকজন মন্ত্রীকে আটক করা হয়।
কয়েকদিন আগেই সৌদি আরবের শীর্ষ ধনী প্রিন্স আলওয়ালিদ বিন তালাল ও আরব স্যাটেলাইট টেলিভিশন নেটওয়ার্ক এমবিসি’র মালিক আলওয়ালিদ আল-ইব্রাহিম অর্থের বিনিময়ে মুক্তি পান। তারা অন্যান্য আরও ব্যক্তিদের সঙ্গে হোটেল রিটজ-কার্লটনে বন্দি ছিলেন।
এদিকে সৌদি আরবের জাতীয় দুর্নীতি দমন কমিশন সোমবার জানিয়েছে, দেশটিতে দুর্নীতির অভিযোগ আগের চেয়ে অনেক বেড়ে গেছে। বিগত বছরের তুলনায় ২০১৭ সালে দুর্নীতির অভিযোগ ৩০ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে।
এক বিবৃতিতে দুর্নীতি বিরোধী কমিশন জানিয়েছে, ২০১৭ সালে তারা ১০ হাজার ৪০২টি অভিযোগ পেয়েছে। ২০১৬ সালে এ অভিযোগের সংখ্যা ছিল ৬ হাজার ২৪২টি।

পড়া হয়েছে ১০৩ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ