মালদ্বীপের প্রধান বিচারপতি গ্রেপ্তার

ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৮, ৯:০৮ পূর্বাহ্ণ
সুপ্রিম কোর্টের সঙ্গে বিরোধ ইস্যুতে মালদ্বীপে ১৫ দিনের জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। সোমবার দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে এই জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করে সংসদ স্থগিত করে দেয়ার পরপরই গ্রেপ্তার হয়েছেন দেশটির প্রধান বিচারপতি আবদুল্লাহ সাঈদ। খবর বিবিসি।
দেশটির সুপ্রিম কোর্ট ঘিরে রেখেছে পুলিশ। আদালতে যেসব বিচারপতিরা ছিলেন তারা সবাই সেখানে আটকা পড়েছেন।
আরও আটক করা হয়েছে মালদ্বীপে প্রায় তিন দশক ধরে ক্ষমতায় থাকা সাবেক রাষ্ট্রপতি মামুন আব্দুল গাইয়ুমকে।
রাজনৈতিক বন্দীদেরকে মুক্তি দেবার জন্য সম্প্রতি মালদ্বীপের সুপ্রিম কোর্ট যে আদেশ দিয়েছে সেটিকে মানতে অস্বীকৃতি জানান বর্তমান প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ ইয়ামিন।
প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনকে অভিশংসনে ও গ্রেপ্তারে সুপ্রিম কোর্টকে রুখতেই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে বলে ধারনা করা হচ্ছে।
এছাড়া আরেক সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে চলমান আরও একটি মামলাকে অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করেছিল সুপ্রিম কোর্ট।
এদিকে মালদ্বীপে জারি করা জরুরী অবস্থা প্রত্যাহার করার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র বিষয়ক সেক্রেটারি বরিস জনসন।
আর যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল এক টুইট বার্তায় জানায়, মালদ্বীপে কি হচ্ছে সারা দুনিয়া সেদিকে খেয়াল রাখছে।

পড়া হয়েছে ১০৮ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ