ত্রিপুরার বিজেপি প্রধান বাংলাদেশের বিপ্লব

মার্চ ৪, ২০১৮, ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি বিজেপি’র ত্রিপুরা রাজ্যের সভাপতি বিপ্লব কুমার দেব। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে রাজ্যরে পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন তিনি। তবে তাঁর আরেক পরিচয় হল তিনি বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত সন্তান।

বাংলাদেশের চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার মেঘদাইর গ্রামের সাথে নাড়ির সম্পর্ক বিপ্লবের। তাঁর দাদা কবিরাজ গোবিন্দ চন্দ্র দেব ছিলেন এই গ্রামের ঐতিহ্যবাহী ‘মাস্টার বাড়ি’র সন্তান।

কবিরাজ গোবিন্দ চন্দ্রের ছিল চার ছেলে। তাদের মধ্যে দ্বিতীয় সন্তান হিরুধন চন্দ্র দেবের সন্তান হলেন বিপ্লব কুমার দেব।

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় স্ত্রী মিনা রানী দেবের সাথে ভারত পাড়ি জমান হিরুধন চন্দ্র। সেখানেই কয়েক মাস পর জন্ম হয় বিপ্লবের।

২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ত্রিপুরা রাজ্যের সর্ব-কনিষ্ঠ সভাপতি হিসেবে বিজেপি’র হাল ধরেন বিপ্লব। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হওয়া রাজ্য নির্বাচনে বিপ্লবের দল ৬০টি আসণের মধ্যে ৪৩টি পেয়ে জয় লাভ করে। আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা না আসলেও বিপ্লবকেই রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী নিয়োগ দেওয়া হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

ভারতে বেড়ে উঠলেও বাংলাদেশের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখেন বিপ্লব ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা। আত্মীয়-স্বজনদের সাথে সাক্ষাৎ করতে প্রায়ই আসেন এপারে।

রাজ্য সভাপতি হওয়ার কিছুদিন আগে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে চাচাতো ভাইয়ের বিয়ে অনুষ্ঠানে আসেন বিপ্লব।

গত বছর ত্রিপুরা রাজ্যের বিজেপির প্রতিনিধি দলের প্রধান হয়ে বাংলাদেশ ভ্রমণে এসেছিলেন তিনি। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কাউন্সিলে অংশ নেন। সেখান থেকে কচুয়াও গিয়েছিলেন বিপ্লব। সেসময় কচুয়া প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে দেওয়া এক সংবর্ধনা গ্রহণ করে তিনি।

বর্তমান সময়ে নির্বাচনে জয় লাভের পর প্রথমবারের মত ব্যক্তিগত ভ্রমণে বাংলাদেশে অবস্থান করছেন তরুণ এই রাজনীতিবীদ।

কচুয়ায় পারিবারিক স্বজনদের সাথে অবস্থান করছেন তিনি।

পড়া হয়েছে ১৪৫ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ