কিডনি ভালো রাখে ৭ খাবার  

মার্চ ১৮, ২০১৮, ১০:৫৬ অপরাহ্ণ

শরীরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হচ্ছে কিডনি। শরীর সুস্থ রাখতে কিডনিকে ভালো রাখা অত্যন্ত জরুরি। কিডনি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ ও রক্তস্বল্পতা দূর করতে সাহায্য করে।এছাড়াও কিডনি প্রতিদিন প্রায় ১৭০ লিটার রক্ত পরিশোধন করে শরীরকে সুস্থ রাখে। আমাদের শরীরে জমতে থাকা টক্সিক উপাদান এবং বর্জ্য পদার্থকে বের করে দেওয়ার কাজটি করে এই অঙ্গটি। সেই সঙ্গে দেহের ভেতরে তরলের ভারসাম্য ঠিক রাখতে এবং আরও নানা কাজে কিডনি বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাই এ  কিডনি সুস্থ রাখার জন্য বিশেষ কিছু খাবার নিয়মিত খেতে পারেন। আমাদের আজকের আয়োজনে এ রকমই কিছু খাবারের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

১) চেরি

চেরিতে থাকা ভিটামিন সি, ভিটামিন কে, ফলেট, ভিটামিন বি৬ এবং ম্যাগনেসিয়াম কিডনির কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা কমাতে শুরু করে। আর  ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা কমলে অর্থ্রাটিসের মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও কমে যায়।

২)ক্র্যানবেরি

চেরির মতো এই ফলটিতেও রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি এবং ম্যাগনেসিয়াম। এ ‍দুটি উপাদান কিডনির কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে।  তাই নিয়মিত ক্র্যানবেরি খেতে পারলে কিডনিতে ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়।

 

৩) দারুচিনি

দারুচিনি রক্তে শর্করার মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। সেই সাথে কিডনির কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে। তাই কিডনি সুস্থ রাখতে  দারুচিনি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দিন যত যাচ্ছে বিশ্বে রোগের পরিমাণ তত বৃদ্ধি পাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে দারচিনি খাওয়া প্রয়োজন।

৪) অলিভ অয়েল

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি গবেষণায় দেখা গেছে ওলিভ অয়েল থাকা নানাবিধ আনস্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড কিডনির কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে। সেই সঙ্গে যারা ইতোমধ্যে ক্রনিক কিডনি ডিজিজে আক্রান্ত, তাদের সুস্থতার জন্য এই তেলটি অনেক বেশ কার্যকর।

৫) রসুন

রসুনের নানাবিধ গুণের কথা আমারা অনেকেই জানি। কিডনির রোগ ‍উপশম করতেও এটি অনেক বেশি কার্যকর। এটি রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। বর্তমানে যারা কিডনি রোগে ভুগছেন তাদের সমস্য দূর করতেও রসুন বেশ উপকারী।

৫)  পেঁয়াজ

পিঁয়াজে থাকা  কুয়েরসেটিন নামক একটি উপাদান থাকে, যা কিডনিকে নানাবিধ ক্ষতিকর উপাদানের হাত থেকে রক্ষা করেতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে এটি রক্তনালীতে চর্বি জমা প্রতিহত করে। এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট কিডনি রোগজনিত উচ্চরক্তচাপ কমাতেও সাহায্য করে।

৬) তুলসী পাতা

তুলসী পাতার হাজারো গুণ। নানা ধরনের রোগের অব্যর্থ ওষুধ তুলসী। তুলসীর রস ও মধু নিয়মিত খেলে কিডনির স্টোন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। কিডনি রোগ প্রতিরোধেও  তুলসী পাতা খুব বেশি কার্যকর।

৭) বেদানা

বেদানার রস কিডনির স্টোনকে নষ্ট করতে এবং কিডনি জনিত রোগ প্রতিরোধে বেশ কার্যকর।  নিয়মিত খেলে শরীরের নানা সমস্য়াকে দূর করাসহ কিডনি সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

এছাড়াও বাঁধাকপি, ফুলকপি, মাছ এবং ডিমের সাদা অংশ কিডনিকে সুস্থ রাখতে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমাত বাড়াতে বেশ কার্যকরী।

সূত্র: বোল্ড স্কাই

পড়া হয়েছে ২৪১ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ