এখন ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করেই চলবে সংসার

মার্চ ১৯, ২০১৮, ১০:৪৭ অপরাহ্ণ
ফেসবুক মালিকানাধীন ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে শুধু যে ছবিই পোস্ট করা হয়, তা নয়। জনপ্রিয় এ যোগাযোগ মাধ্যমটিকে কাজে লাগিয়ে অনেকে বনে যাচ্ছেন উদ্যোক্তা, কামাচ্ছেন অঢেল পয়সাও। আজ এরকমই একজন উদ্যোক্তার গল্প শুনবো বিবিসি বাংলার বরাতে।ব্র্যাডলি সিমন্ডস তার ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন লন্ডনের ফুটবল দল কুইনস পার্ক রেঞ্জারের খেলোয়াড় হিসেবে। কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে তার ফুটবলার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায় ১৯ বছর বয়সেই। তখন বাধ্য হয়ে তাকে অর্থ আয়ের জন্য বেছে নিতে হয় একটি ভিন্ন রাস্তার।‘হেলথ অ্যান্ড ফিটনেস’ বিষয়ের উপর দারুণভাবে আগ্রহী ব্র্যাডলি তখন সিদ্ধান্ত নেন, অন্যদের ব্যক্তিগত প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করবেন। এ লক্ষ্যকে সামনে রেখেই ব্র্যাডলি শুরুতে তার নিজের ও বন্ধুদের ছবি পোস্ট করতে শুরু করেন। কিন্তু তিনি আসলে খুঁজছিলেন একটি সুযোগ।তিনি বিবিসির সাথে আলাপকালে বলেন, ‘আমি আসলে ফিটনেস ও স্বাস্থ্য বিষয়ক কনটেন্টগুলো পোস্ট করতে শুরু করলাম। এটি করতে করতেই কিছু সেলেব্রিটির দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হলাম।’এক পর্যায়ে কিছু ফুটবলার তাদের প্রশিক্ষণে সহযোগিতার অনুরোধ করলো। তারপর অনেকগুলো ব্র্যান্ডের সাথে পার্টনারশিপের ব্যবস্থা হলো। তিনি বলেন, ‘আমি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট দেয়া অব্যাহত রাখলাম, ব্লগিং চললো- ভবিষ্যতের একটা লক্ষ্য দাঁড় করালাম যে একটি জিম খুলবো যেখানে একটি ক্যাফেও থাকবে।’
আর এভাবে ইনস্টাগ্রাম পোস্ট দিতে দিতেই তিনি হয়ে উঠলেন একজন সফল উদ্যোক্তা।ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষ বিবিসিকে জানিয়েছে, বিশ্বব্যাপী তাদের প্রায় আড়াই কোটি বিজনেস প্রোফাইল আছে। ব্র্যাডলিই ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করে উদ্যোক্তা হওয়ার একমাত্র উদাহরণ নন। তবে সবাই যে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করে সফল উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে পারেন, তা কিন্তু নয়। তাদের কেউ কেউ সফল হয়েছেন আবার কেউ কেউ লোকসানের ভারে ন্যুব্জ হয়ে ব্যবসা গুটিয়ে নিচ্ছেন।ফুড ব্লগার এলা মিলস ‘ডেলিশিয়াস এলা’ নামে যে ব্র্যান্ড তৈরি করেছিলেন সেটি অবশেষে অনেক লোকসানের পর বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছেন।তবে ব্র্যাডলি মনে করেন শুধু ইনস্টাগ্রামকে ভিত্তি করেই ব্যবসা চালু করলে হবে না। অনলাইনের বাইরেও আপনার ব্যবসার অস্তিত্ব থাকতে হবে।তিনি বলেন, ইনস্টাগ্রাম শুধু একটা প্লাটফরম, এটা বিলবোর্ডের মতো অনেকটা।তিনি আরও বলেন, ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনাকে অবশ্যই ঝুঁকি নেয়ার অভ্যাস করতে হবে। আর মনে রাখতে হবে, হেরে যাওয়ার মধ্যে কোন লজ্জা নেই।

পড়া হয়েছে ৪৭ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ