‘নাস্তিক ঘোষণা দেয়ার একমাত্র অধিকার আদালতের’

মার্চ ২২, ২০১৮, ১১:৫৬ অপরাহ্ণ

কাউকে নাস্তিক ঘোষণা দেয়ার একমাত্র অধিকার আদালতের। রাষ্ট্রই জেহাদের ঘোষণা দিতে পারে। বললেন মিসরের বিখ্যাত আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রান্ড মুফতি ড. শাওকি ইবরাহীম। খবর ডনের।বুধবার পাকিস্তানের কাউন্সিল অব ইসলামিক আইডিওলজির আয়োজনে পয়গাম-ই-পাকিস্তান অ্যান্ড টেররিজম শীর্ষক সম্মেলনে বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।প্রখ্যাত এই ইসলামি  গবেষক বলেন, উগ্রবাদই একসময় সন্ত্রাসবাদ ও ব্লাসফেমির দিকে ধাবিত করে। কোনো মুসলমানকে অবিশ্বাসী ঘোষণা করাও ইসলামে নিষিদ্ধ।তিনি বলেন, আইএসের মতো গোষ্ঠীগুলো ইসলামের মূল শিক্ষা থেকে দূরে সরে গিয়েছে। কিন্তু তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে তরুণ ও যুবকদের দলে টানার চেষ্টা করছে।আধুনিক মাধ্যমগুলো ব্যবহার করে উগ্রপন্থার মোকাবিলা করার আহ্বান জানান ড. শাওকি ইবরাহীম।সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় প্রকাশিত ফতোয়া সংকলনের সাহায্যে উগ্রবাদ নির্মূলের ব্যবহারিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে এ সম্মেলনে আলোচনা হয়।এতে বক্তারা ধর্মান্ধদের মোকাবিলায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও ইন্টারনেটের প্রয়োজনীয়তার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন। ইবরাহীম বলেন, ধর্মীয় বিধান জারির এখতিয়ার কেবলমাত্র প্রধান মুফতিদেরই থাকতে পারে। গুহায় আবদ্ধ থেকে গুটিকয়েক বই পড়া আধা-শিক্ষিত ওলামাদের নয়।জঙ্গি নেতাদের ধর্মীয় যোগসাজশের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, রাষ্ট্রের সীমানায় আস্থাশীল নয় এমন মনস্তত্ত্বের বিরোধিতা করাও প্রয়োজন।পাকিস্তানের মত করে মিসরও জঙ্গিবাদবিরোধী সংকলন তৈরি করছে এবং মূলধারার আলেম-ওলামারাই তাতে স্বাক্ষর করবেন বলেও জানান তিনি।

পড়া হয়েছে ৭৮ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ