এবার হাত বিচ্ছিন্ন হলো হৃদয়ের  

এপ্রিল ১৮, ২০১৮, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ

গত ৩ এপ্রিল রাজধানীতে দুই বাসের রেষারেষির মধ্যে পড়ে সরকারি তিতুমীর কলেজ ছাত্র রাজীবের হাত কাটা পড়ে। ১৩ দিন পর সোমবার দিবাগত রাতে না ফেরার দেশে চলে যান তিনি। রাজীবের এভাবে চলা যাওয়ার রেষ কাটতে না কাটতে গোপালগঞ্জে বাসের পাশ ঘেঁষে ট্রাক যাওয়ার সময় হাত হারান খালিদ হাসান হৃদয় (২০) নামের এক তরুণ।

হৃদয়ের শরীর থেকে হাতটি বিচ্ছিন্ন হয়ে সড়কে পড়ে যায়। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে গোপালগঞ্জ সদরের পাশে বেতগ্রাম বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বেদগ্রাম এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত হৃদয় মিনার সদর উপজেলার কাড়ারগাতী গ্রামের রবিউল মিনার ছেলে।

তিনি বলেন, তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হৃদয় টুঙ্গীপাড়া এক্সপ্রেসে করে বাড়ি থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় পড়েন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই ঘটনার পর গুরুতর আহত হৃদয়কে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। হৃদয় টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের পরিবহন শ্রমিক। তার বাবার নাম রবিউল ইসলাম। তাদের বাড়ি গোপালগঞ্জ সদরের পুলিশ লাইন এলাকায়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ডিএমসি) হাসপাতালের জরুরি বিভাগের আবাসিক সার্জন মো. আল্লাউদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, হৃদয়ের ডান হাত বিচ্ছিন্ন হওয়া ছাড়াও তার মুখমণ্ডলে আঘাত আছে। তাকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। প্রথমে তাকে রক্ত দেওয়া হবে, পরে ক্ষত স্থান খুলে দেখা হবে।

এর আগে রাজধানীর কারওয়ারবাজার এলাকায় গত ৩ এপ্রিল দুই বাসের রেষারেষির মধ্যে পড়ে ঢাকার সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতকের (বাণিজ্য) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেনের (২১) হাত কাটা পড়ে। ১৩ দিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে ১৬ এপ্রিল সোমবার দিবাগত রাতে রাজীব না ফেরার দেশে চলে যান।etv

পড়া হয়েছে ৫২ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ