আজ মার্চ ১০ গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ৬৯ তম (অধিবর্ষে ৭০ তম) দিন ।

মার্চ ১০, ২০১৬, ১১:১১ পূর্বাহ্ণ

১৯৭১ সালের এ দিনে ভারতের ইন্দিরা গান্ধীর নেতৃত্বাধীন ভারতের কংগ্রেস পার্টি সাধারণ নির্বাচনে ব্যাপক বিজয় লাভ করে। ইন্দিরা গান্ধী ১৯৬৬ সাথে থেকে ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত এবং পরবর্তীতে ১৯৮০ সাল থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহার লাল নেহেরুর একমাত্র কন্যা ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম হয়েছিলো ১৯১৭ সালে। তার মায়ের নাম কমলা নেহেরু। ১৯৩৬ সালে কমলা গান্ধী পরলোকগমন করেন। এরপর ইন্দিরা গান্ধী বিশ্ব ভারতী এবং পরে ইংল্যান্ডের অক্সফোড বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করেন। ১৯৪২ সালে তিনি পারসিক অগ্নি উপাসক ফিরোজ গান্ধীকে বিয়ে করেন। এখানে স্মরণ করা যেতে পারে, ফিরোজ গান্ধীর সাথে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতা মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর কোনো সম্পর্ক নেই। ১৯৫৫ সালে ইন্দিরা গান্ধীকে ভারতের কংগ্রেস দলের কার্য নির্বাহি কমিটির সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। লাল বাহাদূর শান্ত্রী হঠাৎ করে পরলোকগমন করার পর তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন লাভ করেন। ইন্দিরা গান্ধীর রাজনৈতিক জীবনের ইতি ঘটে ১৯৮৪ সালে শিখ দেহরক্ষীর হাতে নিহত হওয়ার মাধ্যমে।

১৮৭৬ সালের এ দিনে আলেকজান্ডার গ্রাহাম বেল তার নব আবিস্কৃত টেলিফোনের মাধ্যমে প্রথম বার্তা প্রেরণ করেন। টেলিফোনের মাধ্যমে প্রথম তিনি তার সহযোগী ওয়াটসনের সাথে কথা বলেছিলেন। গ্রাহাম বেল পাশের একটি কক্ষে অবস্থিত ওয়াটসনকে টেলিফোনের মাধ্যমে বলেছিলেন, ওয়াটসন আপনি কোথায়, জলদি আমার এখানে চলে আসেন। বিখ্যাত এই মার্কিন বিজ্ঞানী আলেকজান্ডার গ্রাহাম বেলের জন্ম হয়েছিলো ১৮৪৭ সালে স্কটল্যান্ডের এডিনবার্গে। তিনি এডিনবার্গ এবং লন্ডনের বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়ন করেন। ১৮৭০ সালে তিনি কানাডা চলে যান পরে সেখান থেকে ১৮৭১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে গমন করেন। আঠার বছর বয়স থেকে গ্রাহাম বেল তারের মাধ্যমে স্বর প্রেরণের ব্যাপারে গবেষণা শুরু করেন। তার এই গবেষণা শেষ পর্যন্ত সাফল্য লাভ করে ১৮৭৬ সালের এ দিনে। ১৮৭৭ সাল তিনি বেল টেলিফোন কোম্পানী স্থাপন করেন। 

১৯৭০ সালের এ দিনে ভিয়েতনামের মাইলাই গ্রামে বর্বরোচিত গণ-হত্যার দায়ে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর ক্যাপটেন আরর্নেস্ট মেডিনা এবং অপর চার সৈন্যকে অভিযুক্ত করা হয়। ১৯৬৮ সালের মার্চ মাসে এই বর্বরোচিত হত্যাকান্ড চালানো হয়েছিলো। ভিয়েতনামে মার্কিন বাহিনী যে সব বর্বরোচিত হত্যাকান্ড চালিয়েছিলো তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রচার পেয়েছিলো মাইলাইয়ের ঘটনা। এই হত্যাকান্ডে দুইশ থেকে ৫০০ নিরীহ গ্রামবাসী মার্কিন সুসজ্জিত সৈন্যদের হাতে নিহত হয়েছে। বৃদ্ধ এবং শিশু এবং নারী মার্কিন বাহিনীর হাত থেকে রক্ষা পায়নি। গ্রামবাসীদেরকে ধরে এনে খাদের কাছে সার বেধে দাঁড় করিয়ে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ছাড়া বৌদ্ধ মন্দিরের প্রার্থনারত ভক্তদের পেছন থেকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। নারীদের ধর্ষণ করা হয়েছে। মার্কিন বাহিনী মাইলাইয়ের গণ-হত্যার ঘটনা এক বছর ধামাচাপা দিয়ে রাখতে সমর্থ হয়। তবে শেষ পর্যন্ত এই ঘটনা প্রকাশ পেয়ে যায়। ঘটনার সাথে ব্যাপক সংখ্যক মার্কিন বাহিনী জড়িত থাকলেও শেষ পর্যন্ত মাত্র ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিলো। অভিযুক্তদের নাম কা ওয়াস্তে শাস্তি প্রদান করা হয়েছিলো।

১৬২৮ সালের এ দিনে ইতালির চিকিৎসক এবং জীব বিজ্ঞানী মার্সিলো মালপেগেই জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি জীবিত প্রাণীদের নিয়ে সমীক্ষা চালানোর পদ্ধতি বের করেন। এবং আণুবীক্ষণিক দেহব্যবচ্ছেদ পদ্ধতির ভিত্তি স্থাপন করেন। তার এই আবিষ্কারের কারণেই ভ্রুণ বিদ্যা, অঙ্গ সংস্থান বিদ্যা এবং চিকিৎসা বিদ্যার ব্যাপক উন্নতি সম্ভব হয়েছিলো। উইলিয়াম হার্ভের অংকিত নক্সার উপর ভিত্তি করে তিনি সকল প্রাণীর রক্ত পরিবহন এবং শ্বাস তন্ত্র পরীক্ষা করে দেখেন এবং সেগুলোকে শ্রেণী বিন্যাস করেন। তিনিই প্রথম বিজ্ঞানী যিনি প্রাণীদেহের ফুসফুস, কিডনি, যকৃত, প্লীহা, মস্তিস্ক, জিভ এবং ত্বক অনুবীক্ষণ যন্ত্রের সাহায্যে পরীক্ষা করেছেন।

ঘটনাবলী

জন্ম

মৃত্যু

পড়া হয়েছে ২৭৯ বার

( বি:দ্রঃ আপনভূবন ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আপনভূবন ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ